অন্য পৃথিবী

সং যুক্তা পাল, যোত শিবরামপুর, দক্ষিন ২৪ পরগনা

                                             

আমাকে নাকি কমলা নামেই সঠিক মানায়

ক্যামেলিয়া হতে বাধা।

বনলতা সেনের মত হাজার বছর ধরে পথ হেঁটেও

নাটোরের হদিশ পেলাম না

তাই কোনো একজনও আমার মুখে শ্রাবস্তীর কারুকার্য দেখতে পেলনা।

জানিনা পৃথিবীর গভীরতর অসুখ

কেন সেদিন আমাকে খোঁজেনি –

খুঁজেছিল সুচেতনাকে …………………….

আমি তো প্রতিদিন এই পৃথিবীর মাটিতেই

দুঃসহবাসে রাত্রি যাপন করি,

আকাঙ্ক্ষার পাটিসাপটায় যাত্রিকতার পুর ভরে গিলতে থাকি রোজ।

বিস্বাদে ভরে ওঠে জিভ,

সাধ আর সাধ্যের দুস্তর ব্যবধারাকে মেনে নিলেও

বেনীমাধব কে ক্ষমা করিনি আজও;

মালতীবালা বালিকা বিদ্যালয় থেকে বেরিয়ে আমি এখন অনেক পরিণত

অত সহজে নিজেকে নষ্ট হতে দেব না।

যদিও, জুলেখা ডবসনের মত একা একা পেরোতে পারিনি কবির হৃদয়পুর,

ভেবেছিলাম আমার জন্য রয়েছে সাঁঝবাতির রূপকথারা –

সেখানেও ফাঁকি,

রূপকথার শেষে তো রাজকন্যা জেতে ।

নীরার মত আমাকে ছুঁয়েছে অনেক হাত

তবু তো পাপ থামেনি !

সত্য শিব সুন্দর যদি নীরার সমার্থক হয়

তবে কেন, নীরা আর নারী এক হয় না !

……………… ঘেঁটে দেখলাম –

রান্নাঘরে বাসনের আওয়াজ কিংবা ভিড় বাসে ঘামের গন্ধ ,

বাচ্ছার খিদে আর ঘুমের মাঝখানে চ্যাপটানো দেহ সৌষ্ঠব

নারীকে নারীই রাখে,

নায়িকা করে না।

          

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *