অব্যক্ত

তিসা মন্ডল

অব্যক্ত অনুভূতিরা

 হৃদরোগে ধক-ধকিয়ে মজেছে

ছেঁড়া নকশিকাঁথায় স্বপ্নের

 বেড়াজাল বুনে গেছে।

 হানাবাড়ির কান্না নিঃশব্দ

 কিছু বলে যায় –

তেঁতুল তলার বাঁশবনের

 শুকনো নির্জন রাস্তা।

 মনুষ্যত্বহীন আবেগ বড়ই

 সস্তা পানির ফল

 পানাপুকুরে সাদাকালো

 ছাইগুলো ভাসে কলকল।

 বাবুকালচারের গানগুলো

কখনও ভেসে আসে

আঁধারের পোড়োবাড়ির

চৌখাট থেকে।

শিউরে ওটা হাড়হিম করা

 প্রণালী যথা

তামাটে ইঁটের ফলকে,

ঝুমুরের ঝলকে

 অবৈধ সারির ভাঁজে,

 দোনালার জং ধরা শিকলের

 খাঁজে কাহিনীরা আছে…

 পুরোনো সম্বলিত

আলমারির বন্ধ গন্ধে

অশ্লীলতার নখের আচড়ই

ওদের রয় প্রশ্নে?

 ভাঙা আয়নার রক্তাক্ত

 কাঁচের টুকরোর দর্পে

অশরীরী হাসির

 দৃষ্টান্ত স্থাপন আজও রয়ে যায়

নিশির ডাকের অঙ্গ সঞ্চালনে………. ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *