করোনা রোধে হ্যান্ড স্যানিটাইজার কতটা কার্যকরী

গোটা বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিনই বাড়ছে। আমাদের দেশেও করোনায় আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে। এ ছাড়া করোনা সন্দেহে অনেককে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। যেহেতু এ রোগের কোনো প্রতিষেধক এখন পর্যন্ত আবিষ্কৃত হয়নি, এ কারণে বিশেষজ্ঞরা প্রতিরোধকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এ রোগ প্রতিরোধে ব্যক্তিগত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকাকেই বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। বিশেষ করে বারবার হাত পরিষ্কারের বিষয়টি উল্লেখ করেছেন তারা। 

গোটা বিশ্বে ময়লা এবং ব্যাকটেরিয়া দূর করতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। তবে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়ায় বিভিন্ন স্থানে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সংকট তৈরি হয়েছে। হ্যান্ড স্যানিটাইজার করোনা প্রতিরোধে কতটা কার্যকরী তা জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা প্রতিরোধে নিয়মিত অ্যালকোহলযুক্ত সাবান ও জল দিয়ে হাত ধোয়ার পরামর্শ দিয়েছে। কারণ  অ্যালকোহলযুক্ত সাবান দিয়ে হাত ঘষলে হাতে লেগে থাকা ভাইরাসগুলো দুর্বল হযে পড়ে। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশির মাধ্যমে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থাকে। যদি এ জীবাণুগুলো কোনো কিছুর ওপর পড়ে তাহলে সেখান থেকেও সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েতে পারে। আর সুস্থ ব্যক্তি যদি হাত দিয়ে সে গুলো স্পর্শ করে তাহলে তার মধ্যেও ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ে। এ কারণে হাত পরিষ্কার রাখতে তারা জোর দিয়েছেন। 

বিশেষজ্ঞদের মতে, স্যানিটাইজার ব্যবহারের চেয়ে সাবান ও জল দিয়ে হাত ধোয়া আরও কার্যকর। তবে যারা ভ্রমণ করছেন, যাদের সাবান-জল ব্যবহারের সুযোগ নেই তারা হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু হাতে ময়লা লাগা বা তেলতেলে ভাব থাকলে স্যানিটাইজারের কার্যকারিতা তুলনামুলকভাবে কম হয়। তারা বলছেন, ভ্রমণের সময় ৬০ থেকে ৭০ শতাংশ অ্যালকোহলযুক্ত স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে পারেন। তবে  অসুস্থ যে কারো সংস্পর্শে আসার পর বা সংক্রমণ ছড়াতে পারে এমন কিছু স্পর্শ করার পর স্যানিটাইজার ব্যবহার করা ঠিক নয়।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, স্যানিটাইজার হাতে লেগে থাকা অনেক ধরনের ভাইরাস থেকে আমাদের রক্ষা করে। তবে এক্ষেত্রে ৭০ শতাংশ অ্যালকোহলযুক্ত স্যানিটাইজার ব্যবহার করা উচিত। তেলযুক্ত বা কম অ্যালকোহলযুক্ত স্যানিটাইজার খুব বেশি কার্যকরী না। 

স্যানিটাইজার ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু বিষয়কে গুরুত্ব দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। যেমন-

১. স্যানিটাইজার ব্যবহারের আগে হাত শুকনো কিনা সেটা আগে নিশ্চিত হয়ে তারপর এটি লাগানো।

২. স্যানিটাইজার ব্যবহারের পর হাত না ধোয়া।

৩. স্যানিটাইজার ব্যবহারের পর এটি ত্বকে ঠিকমতো লেগেছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া।  

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনভাইরাসের লক্ষণ উপেক্ষা করা ঠিক নয়। বরং কোনও ধরনের লক্ষণ দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *