গরীব ঘরের ক্ষণলক্ষ্মী

 প্রবীর রায়,  হিলি, দক্ষিন দিনাজপুর

গরীব ঘরের মেয়েরা কি ? ঘর বন্দীই থাকবে !
বাসন মাজা-কাপড় কাঁচা ! ছাড়া কি ? কিছু পারবে !
শিশু থেকেই-পরাধীন সে ! যুক্ত বাড়ির শ্রমে
গার্জেনেরা ভাবেন সদাই-মেয়ে মানেই ভ্রমে
পড়াশুনায় কি হবে তার ? চাকরি পাবেনা কভু !
তার চেয়ে বরং-কাজ করলে,সুখে থাকবে প্রভু !
তাছাড়া সে বিয়ের পরে-যাবেই অন্যের ঘরে !
তার পেছনে মিছে খরচ-মাথায় যে ভূত চড়ে !
কেউ করছে পরবাড়ি কাজ-কেউ বা যৌনের দ্বারে !
কারো বা হয় বাল্য বিবাহ ! ঔষধে দেহাঙ্গ বাড়ে !
কত যাতনা সয় যে তারা-সংসার ঠিক রাখতে
দুইটি ছেঁড়া -বস্ত্রেই কাটে,পারে না কায়া ঢাকতে !
শৌচালয়হীন বাড়ি সবার-লাজ ঢাকতে জঙ্গল !
রাত যে কাটে-আর ফেরেনা ! রক্তের দেহে দঙ্গল !
নিচু জাতের-মেয়ে যে সে, ঘেঁষে না-মন্ত্রী-মিডিয়া !
এভাবেই যে ক্ষণলক্ষ্মী-মরছে যুদ্ধে হারিয়া !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *