গুগল সার্চে শীর্ষে কাশ্মীরি মেয়ে

মোদি সরকার সংবিধান থেকে কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বাতিলের পর হঠাৎ পাল্টে গেছে ভারতে গুগল সার্চের হিসাব-নিকাশ। গত কয়েক দিনে সব কিছু টপকে ভারত এখন জানতে চাইছে কাশ্মীরি মেয়ে এবং তাদেরকে বিয়ে করার উপায়। ‘কাশ্মীরি গার্ল’ এবং ‘কাশ্মীরি গার্লস’ কি-ওয়ার্ড দিয়ে গুগলে সবচেয়ে বেশি সার্চ করেছেন দেশের মানুষজন। 

‘কাশ্মীরি গার্ল’ লিখে সার্চে প্রথম স্থানে রয়েছে কেরালা রাজ্য। এর পরেই রয়েছে কর্ণাটক। তারপরেই রয়েছে দিল্লি, মহারাষ্ট্র ও তেলেঙ্গনা । গুগলে কাশ্মীরি মেয়েদের নিয়ে সার্চের তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। এর পর সপ্তম ও অষ্টম স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু ও উত্তরপ্রদেশ।

৩৭০ ধারা বাতিলের পর থেকেই গুগল সার্চে সব কিছু ছাপিয়ে উপরে উঠে আসে কাশ্মীরি মেয়ে। কিন্তু কাশ্মীরি কন্যাদের বাইরের রাজ্যে বিয়ে করা আগেও নিষিদ্ধ ছিল না। বিশেষ মর্যাদাপ্রাপ্ত জম্মু-কাশ্মীরের মেয়েরা তাদের রাজ্যের বাইরে বিয়ে করতেই পারতেন। কিন্তু সে ক্ষেত্রে বিয়ের পরে তারা বাপেরবাড়ির সব সম্পত্তির অধিকার থেকে বঞ্চিত হতেন। জম্মু-কাশ্মীর কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হয়ে গেলে এই বঞ্চিত হওয়ার পর্বও বাতিল হবে। নিজের রাজ্যের বাইরে বিয়ে হলেও সে ক্ষেত্রে কাশ্মীরি কন্যারা পিতৃসূত্রে সম্পত্তির উত্তরাধিকার হবেন।

সম্প্রতি বিজেপি নেতা বিক্রম সাইনি বলেছিলেন, ‘কাশ্মীর নিয়ে সরকারের সিদ্ধান্তের ফলে বিজেপির নেতাকর্মীরা এখন সেখানে গিয়ে জমি কিনতে এবং কাশ্মীরি নারীদের বিয়ে করতে পারবেন। দলে যেসব অবিবাহিত নেতাকর্মী রয়েছেন, তাদের জন্য সরকারের সিদ্ধান্তটি খুবই ভালো হয়েছে।’  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine − four =