গোটা বিশ্বে এখন ২০২২ সাল, কিন্তু এখানে ২০১৩ !

গোটা বিশ্বে ২০২২ সাল শুরু হয়েছে। কিন্তু বিশ্বের একটি দেশে এখনও ২০১৩ সাল চলছে। দেশটি আফ্রিকার। বিশ্বের গভীরতম এবং দীর্ঘতম গুহা এখানেই। আবার বিশ্বের সবচেয়ে উষ্ণতম স্থানও এই অঞ্চলেই। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে পূর্ণ এই দেশ, ইথিওপিয়া।

কিন্তু কেন এই দেশটিতে এখন ২০১৩ সাল? কারণ ইথিওপিয়ার ক্যালেন্ডার বিশ্বের প্রচলিত ক্যালেন্ডার থেকে ৯ বছর পিছিয়ে। তাদের নিজস্ব ক্যালেন্ডার রয়েছে। যেটি চলতি গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার থেকে সাড়ে আট বছর পিছিয়ে রয়েছে। এখানে নতুন বছর উদযাপিত হয় ১১ সেপ্টেম্বরে। ১২ মাসের বদলে প্রতি ১৩ মাস পরে এখানে বছর আসে। 

আর এক আশ্চর্য ব্যাপার রয়েছে এই দেশের দিনপঞ্জিতে। গ্রিক ভাষায় ‘প্যাগিউম’ বা ইংরেজিতে ‘ফরগটেন ডেজ’ নিয়ে ইথিওপিয়ান ক্যালেন্ডারে তৈরি হয় একটি মাস। মোট কথা এদের ক্যালেন্ডার এখনও ২০১৩ সালেই আটকে থাকায় ইথিওপিয়ায় ভ্রমণে যাওয়া লোকজনের সে দেশে হোটেল বুকিং ও অন্যান্য অনেক ক্ষেত্রেই বেশ সমস্যা ঘটে।

গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারের আগে বিশ্বে চলত জুলিয়ান ক্যালেন্ডার। ফলে জুলিয়ান ক্যালেন্ডারকে সরিয়ে গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার যখন এলো, তখন অনেক দেশ এই নতুন দিনপঞ্জির বিরোধিতা করেছিল। ইথিওপিয়াও ছিল সেইরকম এক দেশ। তার মানে এই দেশটির ক্যালেন্ডার জুলিয়ান অনুসারী, বরং ইথিওপিয়ার অর্থোডক্স টিওয়াহেদো চার্চের দিনপঞ্জির সঙ্গেই এদের সরকারি ক্যালেন্ডারের কিছু কিছু মিল পাওয়া যায়। যাই হোক ইথিওপিয়া যেতে হলে কিন্তু এই ব্যাপারটি অবশ্যই মাথায় রাখবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − four =