চতুর্থ আন্তর্জাতিক ক্যারাটে চ্যাম্পিয়নশিপ

ক্যারা টে অর্থাৎ খালি হাতে আত্মরক্ষার কৌশল। বর্তমান সমাজে যার বিকল্প নেই। আত্মরক্ষার কৌশল শেখার পাশাপাশি শারীরিক এবং মানসিক বিকাশের ক্ষেত্রেও ক্যারাটের জুড়ি মেলা ভার। নারী পুরুষ নির্বিশেষে ক্যারাটে এখন অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি খেলা। সেই জনপ্রিয়তারই আঁচ মিলল চতুর্থ আন্তর্জাতিক ওপেন ক্যারাটে চ্যাম্পিয়নশিপে। ২৮ এবং ২৯ শে জুলাই এই উপলক্ষে কলকাতার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম ছিল সরগরম।

                

ইরান, সিঙ্গাপুর, বাংলাদেশ, নেপাল, শ্রীলঙ্কা সহ বিভিন্ন দেশ থেকে আসা নানা বয়সের প্রতিযোগীদের অংশ গ্রহণে স্টেডিয়াম হয়ে উঠেছিল বর্ণময়। গোটা অনুষ্ঠানের অভিভাবক ছিলেন বেঙ্গল ক্যারাটে অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তথা ইন্ডিয়ান ক্যারাটে অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক প্রেমজিৎ সেন।

 

দমদম স্পোর্টিং ক্লাব, নতুন দল, কেন্দ্র বিহার প্রভৃতি ক্লাবের শিক্ষার্থীদের পারফরম্যান্স ছিল দেখার মত। প্রশিক্ষক রুদ্র বন্দ্যোপাধ্যায় এবং স্বর্ণালী দাসের কথায়, “এই শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন ধরে কঠোর অনুশীলন করেছে, তারই ফল মিলেছে হাতেনাতে।”

কুমিতে বিভাগে স্বর্ণ পদক জয়ী সায়ন গুহ, সৌম্যদীপ পাল। রূপো এসেছে নিশান্ত সাউ, শ্যামলী সরকারের হাতে এবং ব্রোঞ্জ পদক জয়ী শালিনী সাহা, আদিত্য রাই, আরিয়ান দেবাবি, দেবায়ুধ গুহ রায়, সক্ষম কুমার ঝাঁ এবং প্রাচী পাল।

পাশাপাশি কাতা বিভাগে ব্রোঞ্জ পেয়েছে দুজন। রিধা রায় কর্মকার এবং আদিত্য রাই। এতেই অবশ্য সন্তুষ্ট নয় এই সফল ক্যারাটেকারা। আগামী দিনে আরও ভাল ফল করবার উদ্দেশ্য নিয়ে এখন থেকেই জোর কদমে প্র্যাকটিসে নেমে পড়েছে সকলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *