চিত্রগ্রাহক আসেনি, বিয়ে ভাঙল কনে

ফটোগ্রাফার জোগাড় করতে পারেননি বর। সেই অপরাধে বিয়েই বাতিল করে দিলেন কনে। ঘটনা উত্তরপ্রদেশের কানপুরের কাছে একটি গ্রামে। পাত্রীর বাড়ি কানপুর দেহাটের মঙ্গলপুরের একটি গ্রামে। তার বাবা পেশায় কৃষক। বিয়ে ঠিক হয়েছিল ভোগনিপুরের এক পাত্রের সঙ্গে। শুধু বিয়ে ঠিকই নয়। সমস্ত আয়োজনই হয়ে গিয়েছিল। অনেক খরচ করে অনুষ্ঠানের জোগাড় সারেন কনের বাবা।

বিয়ের দিন সময় মতো ‘বারাত’ (বরযাত্রী) এসে হাজির। কনের পরিবার তাদের রীতিমাফিক স্বাগত জানায়। মালাবদলের জন্য কনে এবং বর মঞ্চে যায়। স্টেজে উঠেই চারিদিকে তাকাতে থাকেন কনে। আত্মীয়, পরিজন, বন্ধুরা তো আছেন। কিন্তু আসল লোক কই? কনে বুঝতে পারেন, তাঁর স্মরণীয় মুহূর্ত ধরে রাখার জন্য কোনও ফটোগ্রাফার বা ভিডিওগ্রাফারের ব্যবস্থা নেই। সঙ্গে সঙ্গেই বিয়েতে অংশ নিতে অস্বীকার করেন কনে। শুধু তাই নয়, বিয়ের মঞ্চ থেকে নেমে আসেন। চলে যান পাড়ার এক প্রতিবেশীর বাড়ি।

সবাই মিলে কনেকে বোঝানোর অনেক চেষ্টা করেন। কিন্তু কনের সাফ কথা, ‘যে মানুষটা আজ আমাদের বিয়ের বিষয়েই যত্ন নেয়নি, সে ভবিষ্যতে কীভাবে আমার দেখভাল করবে?’ পরিবারের বড়রাও তাকে বোঝানোর চেষ্টা করেন। তবে কোনও কথাই শুনতে নারাজ কনে।

ব্যাপার-স্যাপার দেখে স্থানীয় থানায় যায় বরপক্ষ। থানা থেকে মিটমাট করে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। এরপর দুই পক্ষই পারস্পরিক সম্মতিতে বিনিময় করা নগদ টাকা ও মূল্যবান জিনিসপত্র ফেরত দিতে সম্মত হয়। চিত্রগ্রাহক না থাকায় সেই না হওয়া বিয়ের ছবি আমাদের কাছেও নেই। উপরের ছবিটি প্রতীকী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 4 =