জীবাণুমুক্ত রাখতে হবে ঘর

প্রতিটি মানুষের কাছেই নিজ বাড়ি বা ঘর নিরাপদ জায়গাগুলোর একটি। তবে আপনার একটি ভুলে নিরাপদ স্থানটি হয়ে উঠতে পারে ভয়ানক। বর্তমান পরিস্থিতিতে আপনার অজান্তে ঘরের মধ্যে প্রবেশ করতে পারে করোনা নামক প্রাণঘাতী ভাইরাসের জীবাণু। আপনারই খোলা হাত, জুতা, পোশাক বা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ঘরে আসতে পারে করোনাভাইরাসের জীবাণু।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, পরিষ্কার করা আর জীবাণুমুক্ত রাখা দুটো আলাদা বিষয়। ঘর-বাড়ি দেখতে পরিষ্কার মনে হলেও সেখানে থাকতে পারে জীবাণু। বিভিন্নস্থানে ভাইরাস বিভিন্ন সময় ধরে বেঁচে থাকতে পারে। যা আপনার ও আপনার পরিবারের স্বাস্থ্যের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন পরিবারের কেউ যদি অসুস্থ নাও থাকেন, তারপরও সতর্কতা হিসেবে প্রতিদিন ঘর পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত করা উচিৎ। এর জন্য বাজারে পরিষ্কার করার যেসব পণ্য পাওয়া যায় তাই যথেষ্ট। পরিষ্কার করার ক্ষেত্রে এমন জায়গাগুলোতে মনোনিবেশ করতে হবে, যেগুলো সবার সংস্পর্শে বেশি আসে। দরজার হাতল, বৈদ্যুতিক সুইচ, টেবিল, ফোন, কিবোর্ড, টয়লেট, কিচেন সিঙ্ক ইত্যাদি গরম জল ও জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে। যে কোনও কিছু জীবাণুমুক্ত করার আগে, গ্লাভস পরা উচিত। আর পরিষ্কার বা জীবাণুমুক্ত করার পর অবশ্যই নিজের হাত সাবান ও গরম জল দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে।

সবচেয়ে বেশি জীবাণুর দেখা পাওয়া যায় রান্নাঘরে বা যেখানে খাবার তৈরি করা হয় সেখানে। কিংবা, যেসব পাত্রে খাবার পরিবহন করা হয় সেগুলো জীবাণুদের অভয়াশ্রম। তাই, বাজারের ব্যাগ বারবার ব্যবহার না করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

সবশেষে বর্তমান পরিস্থিতিতে যেটা বেশি করে মাথায় রাখতে হবে বাইরে না গেলেও নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে আমাদের ঘন ঘন হাত ধুতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *