তবুও প্রতীক্ষা…

স্বপন রায়

জোনাকির আলো থেকে ঝরে পড়া বিষণ্ন রাতে,
আমার প্রতীক্ষার আঙিনা জুড়ে নীরবতা ধূধূ প্রান্তর—
যেভাবে ফাঁকা মাঠ পিপাসায় কাতরায় তপ্ত দুপুরে
যেভাবে যুদ্ধের শেষে কেউ বেঁধে যায় ক্লান্তির ঘোড়া ৷

কত না প্রহর জেগে কুড়িয়েছি বিষাদের ভোর…
বেদনার কথা শুধু লিখে গেছি একা বালুচরে
কবিতার পাতা থেকে খসে যায় এক একটি চোখ ৷

নির্জনতার নীচে একফালি মেঘ কেন জমেনা সহসা ৷
তবুও প্রতীক্ষা,বর্ষার জল যদি শরীর ভেজায়…
ধুয়ে দিয়ে মলিন সে পাতাগুলি গাছের শিঁকড়ে,
অশান্ত মজ্জায় এনে দেয় মৃদু মৃদু প্রাণসঞ্চার ৷

ভাবনার ঘূড়িখানি ছোটো হতে হতে শেষে আকাশে হারায় ৷
জানি না ফিরবে কিনা?তবুও লাটাই থেকে খুলে যাই সুতো ৷
স্বপ্নের ওপারে যে ঘর ছিল আবছায়া গ্রাম_
দূরে কোনো পাহাড়ের কোল থেকে নেমে আসা ঝরনার স্রোত
নিশিদিন থোকা থোকা  কষ্ট পাড়ি সে পথের ধারে ৷

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *