তুমি আসবে বলে

অশোক দাশ ##

তুমি  আসবে  বলে

শিশিরে ভেজা ঘাসের ডগায়

          ঝরে মুক্ত কণা,

শিউলি বিছানো পথে পথে

         প্রতীক্ষার প্রহর গোনা।

তুমি আসবে বলে

নীল   সায়রে   পদ্ম    কুঁড়ি

   বৃতিতে পাপড়ি ঢাকে,

তোমার চরণে করতে সমর্পণ

     আড়ালে লুকিয়ে থাকে।

তুমি আসবে বলে

প্রজাপতি আরো একদিন

     গুটিতে গুটিয়ে রাখে,

রঙে-  রঙে   রঙ   ছড়াবে

       তোমার    আবাহনে।

তুমি আসবে বলে

জল ভরা মেঘ করে টলমল

    আছে ঝরার অপেক্ষায়,

তোমার চরণ করতে ধৌত

     মেতে আছে বন্দনায়।

তুমি আসবে বলে

ঢাকের   বোলে    ছন্দ    ওঠে

      বিষন্ন মুখে হাসি ফোটে,

পুজোর   গন্ধে   সবাই    মাতে

      ছেলে -বুড়ো  একসাথে।

তুমি আসবে বলে

মৃৎশিল্পীরা   মূর্তি   গড়ে

   মলিন মুখে রোদ্দুর ঝরে,

পরিবারের   সকলে    মিলে

     কাজে    ব্যস্ত     থাকে।

তুমি আসবে বলে

সদাগরের নৌকো ভাসে অথৈ জলে

       বিকিকিনির কোলাহল কলরবে,

উৎসবের ‌‌ ছোঁয়া ‌‌‌ লাগে   সব   প্রাণে

        গ্রাম  – শহর   -নগরে,

তুমি আসবে বলে

দুখীর  ঘরে  আলপনা   আঁকে

     বুকের ব্যথা লুকিয়ে রেখে,

হাসি    মুখে    আনন্দে     মাতে

      তোমার    চরণ   বরণে।

এস মা এসো তুমি

দুগ্গা -দুর্গতি-  হারিনি

ঘোচাও   দুঃখ  দৈন্য  কলুষতা

দাও সুখ সমৃদ্ধি শান্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 1 =