দুর্নিবার অপেক্ষা

জয়ীতা চট্টোপাধ্যায় ##

শুনি পাখির শব্দ বুকের ভেতর বাজে আর্তনাদ

কোন দিকে ধাবিত হয় সমুদ্রের সুর

আমার ভেতর হৃদয় ভাঙার নিনাদ

কোথায় কখন ভোর হয়ে যায়

ভেতর জুড়ে অগনন মানুষের মৃত্যু যন্ত্রনা

সে এক কালো অন্ধকার যেনো এক মৃতের হৃদয় বিস্মিতের সান্ত্বনা

এ কোন সিন্ধুর সুর ভেসে আসে 

আমার বুকের মরণ পারে

অনন্ত রাত্রির মতন মনে হয় এ বুকের যন্ত্রনা

একটা গোটা রাতের ব্যাথা সয়ে রক্তাক্ত অধরে

সে এক দুর্নিবার অপেক্ষা যদি ভোরবেলা আবার আসে? 

বুকের ভেতর জেগে ওঠে আগামী রাতের কালপুরুষ

যদি সে আবার ভালোবাসে

থাকবেনা অসহনীয় যন্ত্রনায় ডানা ঝাপটানো

দক্ষিণের হাওয়া বিঁধবেনা কাঁটার মতন

কি জানি সে জানে কি না সৃজনের ভয়াবহতার মানে

তবু জীবনে যদি সে একবার ফিরে আসে বসন্তের কল্যাণে

বিলীন হয়ে যাবে মায়ামৃগের মতন নিত্য দিক দর্শিন

আমার কঙ্কালের ক্লান্ত ইতিহাস অনুভবে চুকিয়ে দেব সমস্ত ঋণ।। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − thirteen =