নীলাচলের সৈকতে

সবুজ জানা ##

সমুদ্রমুখো পশ্চিমা ব্যালকনি সাক্ষী থেকেছে সেদিন……

আকাশের কমলালেবু শরীরে নমনীয় জলের ঠোঁটে চুমু

সব শিহরণ জোলো হয়ে সমুদ্রের গভীরে সুপ্ত থাকে না

বরং পেয়ালা উপচে পড়ে বুদবুদ আর ফেনার সম্ভারে।

সমুদ্রমুখো পশ্চিমা ব্যালকনি সাক্ষী থেকেছে সেদিন…… 

গোধূলির তরল আলোয় স্নান সারছে সূর্যাস্তের সৈকত

নোনাজলে গুলে যেতে খুব একটা অসুবিধা হচ্ছে না।

ঢেউয়ের ধমনীতে বসন্ত পুড়ছে, তাই সমুদ্রের না শুনেও 

আছড়ে পড়তে দেখেছি ওদের বালিচরে….অবাধ্য প্রেম।

এই একান্ত সিদ্ধান্তগুলো ভেতরে ভেতরে শেকড় ছড়িয়ে দেয় নাগরিক অনুমোদনে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *