পাথর ভাজা খেয়েছেন কখনও ?

মানুষের বৈচিত্র্যময় খাদ্যাভাস নিয়ে নানা রকম খবর প্রায়ই দেখা যায়। চিন তো এসব ব্যাপারে অনেক আগে থেকেই এগিয়ে। এবার আলোচনায় এলো ‘পাথর ভাজার’ মতো খাবারের কথা। মূলত এটি চিনের হুবেই প্রদেশের ঐতিহ্যবাহী খাবার। এই খাবারকেই বিশ্বের সবচেয়ে কঠিন খাবার বলা যেতেই পারে। নুড়ি পাথরগুলোর সাথে মজাদার মশলা মিশিয়ে এটি ভাজা করা হয়। পরে চুষে এর ভেতরকার মশলাদার স্বাদটি উপভোগ করা হয়।

নুড়ি পাথরের খাবারটি আঞ্চলিকভাবে ‘সুওডিউ’ নামে পরিচিত, যার অর্থ ‘চোষা ও ফেলে দেওয়া।’ সম্প্রতি চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই পাথর ভাজা নামক খাবারের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। রাস্তার বিক্রেতারা কীভাবে এই অস্বাভাবিক খাবার রান্না করে তাও এই ভিডিওতে দেখানো হয়। ভিডিওতে দেখা যায়, রাঁধুনি নুড়ি পাথর ফ্রাই প্যানে নিয়ে তাতে মশলা ও তেল ঢেলে দেন। পরবর্তী ধাপে পাথরগুলোর ওপর রসুনের সস ছিটিয়ে দেওয়া হয়। তারপর এতে রসুন, লবঙ্গ এবং কুচি করা লঙ্কা মিশিয়ে ভাজতে থাকেন।

রাঁধুনি জানান, ওই অঞ্চলে খাবারটি অনেকটা অ্যালকোহলের মতোই জনপ্রিয়। এক বক্স ভাজা নুড়ি পাথরের দাম প্রায় ১৬ ইউয়ান বা ২.৩০ মার্কিন ডলার যা ভারতীয় টাকায় প্রায় ২০০ টাকা। ভিডিওতে দেখা যায়, একজন ক্রেতা দোকানদারকে জিজ্ঞেস করেন ‘আমি শেষ করার পর নুড়িগুলো কি তোমাকে ফেরত দিতে হবে?‘ প্রত্যুত্তরে দোকানদার বলেন, ‘এটি আপনি বাড়ি নিয়ে যত্ন করে রেখে দিতে পারেন।’ আপনিও চিনে গেলে এই খাবার খেয়ে দেখতেই পারেন, তবে খবরদার চিবিয়ে স্বাদ নেওয়ার চেষ্টাও করবেন না…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − two =