পাহাড় থেকে সমতলে

সাইনি রায় ##

পাহাড়ের কোলে ও কি জ্বলে?

প্রতিরাত ও কিসের প্রদাহ,

পাহাড়ের বুক কুরেকুরে খায়?

আমি যেন সেই আলোর মধ্যে,

পাহাড়িয়াদের পদধ্বনি শুনতে পাই।

কিংবা আগামী দিনের পরিবর্তনের নিঃশব্দ পদচারণ।

অনেকটা আমার জীবনের-

অপেক্ষারত দিন বদলের কাহিনীর মতন।

সারাদিন ধরে নিষ্পেশিত হওয়ার পর রাতের বেলা আমিও,

নিভৃতে নির্বাক হয়ে রেনেসাঁ যুগের ইতিহাস পড়ি।

ওরা বলপ্রয়োগ করে আমার কন্ঠরোধ করেছে।

কিন্তু বিশ্বাস কর,

বুকের মধ্যে ধিকিধিকি জ্বলতে থাকা বিদ্রোহের আগুনটাকে;

ওরা নেভাতে পারেনি।

ছাইয়ের নিচে চাপা পড়ে থাকা সে আগুন,

একদিন প্রতিবাদের আগ্নেয়গিরি হবেই।

আমি প্রস্তুত আছি মশাল জ্বালানোর জন্য। 

তারপর সেই মশাল দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে;

শুভ সূচনা হবে আন্দোলনের।

আমি নিজে হাতে সে মশাল তুলে দেব,

সেই পাহাড়িয়া ভাই-বোনেদের হাতে;

যারা আজ দেশ-কাল-সীমানা ভেদে,

আমার থেকে বহুদূরে,

কোন পাহাড়িয়া উপজাতি হয়ে পাহাড়ের কোলে বসে,

নতুন যুগের ইতিহাস লেখে।

যাদের নগ্ন পদাঘাতে,

পাষাণেরও হৃদয় কাঁদে।

তাদের সাথে আমার কোনো রক্তের সম্পর্ক নেই,

তবু মিলে যায় তাদের সাথে আমার অবহেলার কাহিনী। 

এই অবহেলাই আজ জোটবদ্ধ করেছে আমাদের।

কোনো একদিন খোলা আকাশের নিচে, 

শপথ নিয়ে প্রতিবাদে সোচ্চার হব আমরা।

মিলেমিশে যাবে পাহাড় ও সমতল।

আপাততঃ শুধু শুভ মহরতের প্রতীক্ষা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten − five =