লম্বা দাড়ির মেয়েটি

তেল চকচকে সুন্দর লম্বা দাড়ি, এ আর নতুন কি বিষয়? কিন্তু যদি বলি এই লম্বা দাড়ির জন্য গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করেছেন এক তরুণী, তাহলে নিশ্চয় একটু থমকাবেন? আমেরিকার মিশিগান শহরের বাসিন্দা ৩৮ বছর বয়সী এই তরুণীর নাম এরিন হানিকাট। তিনি বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা দাড়িওয়ালা নারী।

১৩ বছর বয়সে প্রথমবার শারীরিক তথা সামাজিক অস্বস্তির মধ্যে পড়েন এরিন। যেহেতু কিশোরীর মুখে ‘ছেলেদের মতো’ দাড়ি গজাতে শুরু করে। শুরুতে নিয়মিত মুখের পশম তুলে ফেলতেন এরিন। ওয়াক্সিং করতেন, হেয়ার রিমুভাল লোশনও ব্যবহার করতেন। কিন্তু একবার উচ্চ রক্তচাপের কারণে চোখে স্ট্রোক হয় তার। এর পরেই দাড়ি কাটা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেন। ফলে দিনে দিনে এরিনের দাড়ির দৈর্ঘ্য বাড়তে থাকে। এমনকি তা পুরনো গিনেস রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

প্রায় এক ফুট লম্বা দাড়ি এরিনের। সঠিক হিসাবে দিলে ১১.৮ ইঞ্চি। তিনি ৭৫ বছরের ভিভিয়ান হুইলারের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন। ভিভিয়ানের দাড়ির দৈর্ঘ্য ১০.০৪ ইঞ্চি। অর্থাৎ এরিনের দাড়ি ১.৪ ইঞ্চি বেশি লম্বা। সেই কারণেই নতুন গিনেস রেকর্ডের মালিক হলেন তিনি। তাই বলে কি একজন মেয়ের মুখে দাড়ি নিয়ে কটাক্ষের শিকার হননি? এরিন জানিয়েছেন, পরিবার পাশে থাকাতেই সেসব কটাক্ষকে অতিক্রম করতে পেরেছেন তিনি। তার কথায়, “আমি আমাকে নিয়ে খুশি। জীবনের প্রতি ইতিবাচক।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine + 20 =