সহজে হয় না ফেরা

বহ্নিশিখা ঘোষ

 

না জানি সে কতদিন আগে,

সব ছেড়ে এসেছি অজানা ভুলে

ভালবাসার একটি নীলপদ্ম ফোটাব বলে।

 

এখন মধ্যরাত,স্তব্ধ ফেরিঘাট,

গঙ্গার এখন কিছুটা অবসর

ভোর হলে হারিয়ে যায় জলেরও নিজস্বতা।

 

হাওড়ার স্টেশনের বড় ঘড়িটি

জানান দেয় প্রহর,

কলরব তোলা দোকানগুলো ক্লান্ত শরীরে

নেতিয়ে পড়েছে রাস্তার পাশে।

 

দুচোখ ভরা ঘুম ফুটপাতের শরীরে

আমি শুধু জেগে থাকি একলা উপোসী

শেষ বাসটির আশায়।

 

বিরহী পথিকের মতো হেলেদুলে চলে যাওয়া

শেষ বাসটা উস্কে দিয়ে যায় কিছু স্মৃতি,

ওর পিছু পিছু গেলে

আমার স্বদেশ,আমার স্বজন।

 

ও রোজ ছুঁয়ে আসে রাঙা পথ, ভিটেমাটি।

দূর থেকে ভেসে আসে সহজিয়া সুর

শুধু আমার আর সহজে ফেরা হয় না

সোহাগী ছায়া মাখা নিরালা গভীরে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *