সুগার ফ্রি আম আবিস্কার পাকিস্তানী গবেষকের

 

সুগারের কথা ভেবে আম খেতে ভয় পান অনেকেই। বিশেষ করে ডায়বেটিক রোগীদের আম খাওয়া অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয়। ডায়াবেটিক রোগীদের কথা মাথায় রেখে এবার মিষ্টিহীন আম উদ্ভাবন করেছেন পাকিস্তানের এক ফল গবেষক। তার নাম গুলাম সারওয়ার। পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশে এম এইচ পানওয়ার ফার্মের আম বিশেষজ্ঞ তিনি। অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর মিষ্টিহীন আম তৈরি করেছেন তিনি।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গুলাম সারওয়ার বলেন, ‘বাজারে যেসব আম পাওয়া যায় তাতে মিষ্টির পরিমাণ খুব বেশি থাকে। এই পরিমাণ মিষ্টি একজন ডায়াবেটিকের পক্ষে খুবই ক্ষতিকর।’ এম এইচ  পানোয়ার নিজে ছিলেন একজন ফল গবেষক। তিনি আম কলা প্রভৃতি ফলের উপরে নানান গবেষণা করেছেন। পাক সরকার তাকে  সিতারা ই ইমতিয়াজ খেতাবও দিয়েছে। সেই পানোয়ারেরই ভাগ্নে গুলাম সারওয়ার। গুলামের ৩০০ একর জমিতে ৪৪ ধরণের আম ফলে।

গুলাম এমন আম তৈরি করেছেন যেখানে শর্করার পরিমাণ মাত্র ৪ থেকে ৬ শতাংশের মধ্যে থাকবে। গুলাম তিন প্রজাতির আমের উপর এই পরীক্ষা চালিয়েছেন। ওই তিন প্রজাতি হলো সোনারো, গ্লেন এবং কেইট। তার গবেষণার ফলে সোনারোতে মিষ্টির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫.৬ শতাংশ, গ্লেনে ৬ শতাংশ আর কেইটে মিষ্টির পরিমাণ সবচেয়ে কম, ৪.৭ শতাংশ।

ইতোমধ্যে পাকিস্তানের বাজারে এই মিষ্টিহীন আম বিক্রির ছাড়পত্রও পেয়ে গিয়েছে। দাম নির্ধারিত হয়েছে পাকিস্থানী মুদ্রায় প্রতি কেজি ১৫০ টাকা যা ভারতীয় মুদ্রায় দাঁড়াবে ৭০ টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 − 10 =