স্বাধীনতা

দীপ কুমার, কলকাতা ##

স্বাধীনতা 

অমর কবিতা রক্তের ইতিহাসে

মাঠে মাঠে সোনার ফসল অনেক চাষির চাষে

স্বাধীনতা 

সুমধুর বাঁশি রাখাল সভার বুকে

ঐ আকাশের বিধুর হাসি অনাহারের মুখে 

স্বাধীনতা 

দুর্গম পথ সীমাহীন সে দূর

এ জগতে একটি স্বর একটি বীরের সুর

স্বাধীনতা 

খোলা জানলার উদাস দখিন হাওয়া

লালনের একতারার সুর প্রাণে যেন পাওয়া

স্বাধীনতা 

মুক্ত পাখির ইচ্ছে খুশির ডানা

নীল আকাশের মেঘের পাল নেই যেন তার মানা

স্বাধীনতা 

প্রাণের সুতায় গাঁথা  রক্ত জবার ফুল

দেহ ছোঁয়া দুধার বাঁধা জীবন  নদীর কুল

স্বাধীনতা 

বীর শহীদের রক্তে ভেজা একটি চিঠি

যেমন ইচ্ছে তেমন ঘুমে শীতল মাটির একটি মুঠি

স্বাধীনতা 

শকুনের পায়ে ও ঠোঁটে কাঁচা তাজা রক্ত মাংসের ছাপ

ধর্ষিতার ছিঁড়ে যাওয়া শাড়িতে আঁকা স্বাধীন ভারতের ম্যাপ

স্বাধীনতা 

ঝোপঝাড় জলে স্থলে শুধুই লাশের গন্ধ 

শহীদের ওই রক্ত রঙে  সবুজের চোখ অন্ধ

স্বাধীনতা 

ছন্দ ভরা গোলা বারুদের সঙ্গীত 

মিরজাফরের মরিচা ধরা ব্রিটিশদের ওই পীরিত

স্বাধীনতা 

প্রিয় হারা প্রিয়ার বুকের বিষাদ বেদনা

মাঠে ময়দানে জন কোলাহলে তোমারি উন্মাদনা 

স্বাধীনতা 

তোমায় ঘিরে সোনার ভারত দাবী

ওই বিধবার বুকে সধবার পাঞ্জাবী 

স্বাধীনতা 

শহীদ শিক্ষকের পকেটে তিন পুরুষের কলম

কচি দুধের শিশুর মরণ নির্মম

স্বাধীনতা 

তিতুমিরের বাঁশের কেল্লা

দীঘল দীঘির জলে দামাল ছেলে মেয়েদের হই হল্লা

স্বাধীনতা 

ছিনিয়ে নেওয়া ব্রিটিশ বাহিনীর রক্তের নেশা

আমার দেশ ও জাতির গৌরবের তৃষা

স্বাধীনতা 

নব দম্পতির প্রথম স্বপন

লক্ষ কোটি লাশের দাফন- কাফন

স্বাধীনতা 

বকুল তলে ছোট্ট মেয়ের গাঁথা মালা

মধুর মধুর ছন্দ আমার মায়ের হাতের বালা

স্বাধীনতা 

তোমায় পেয়েছি তবু আজও খুঁজেছি যেন কারে

লঙ্কা থেকে রামের মত আনতে পেরে সীতারে

স্বাধীনতা 

তুমি নেতাজির দেহ মন প্রাণ

চির অমর অবিনশ্বর অম্লান

স্বাধীনতা 

তুমি তো নেতাজির অন্তর্ধানের কথা

তোমায় খুঁজিব কোথায়? তুমি তো সেথায় হয়ে আছো স্বাধীনতা।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *