২০২২ ডুব দিয়ে বর্ষবরণ

হিমশীতল জলে টানা ৪৫ মিনিট ধরে ২০২২টি ডুব দিয়েছেন  তিনি। ২০২২ সালকে বরণ করতে একটা-দুটো নয় এতগুলি ডুব দিয়ে বিশ্বরেকর্ড করতে চেয়েছিলেন বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের বাসিন্দা সদানন্দ দত্ত। 

নতুন বছরের প্রথম দিনে তাপমাত্রার পতনে  যখন জবুথবু বাঁকুড়া। ঠিক সেই সময়েই সকলকে চমকে দিলেন বিষ্ণুপুরের সদানন্দ।  নববর্ষকে স্বাগত জানাতে বিষ্ণুপুরের লালবাঁধের ঠাণ্ডা জলে পরপর ২০২২টি ডুব দিয়েছেন তিনি। এমনটাই দাবি সদানন্দের। 

সদানন্দ জানিয়েছেন, বছর পাঁচেক আগে তার মাথায় আসে জলে ডুব দিয়ে বিশ্বরেকর্ড করার। কিন্তু কত সংখ্যক ডুব দিলে তা সম্ভব, সেটি জানা ছিল না তার।  তিনি স্থির করেন, সনের সংখ্যা ধরেই ডুব দেবেন। সেই থেকে প্রতি বছর ডুব দিয়ে আসছেন তিনি। এবারও তার অন্যথা হল না। শনিবার ২০২২ সালের প্রথম দিনে পরপর ২০২২টি ডুব দেন সদানন্দ। স্মৃতি বিজড়িত লালবাঁধের পাড়ে দাঁড়িয়ে সদানন্দের এই অভিনব কায়দায় বর্ষবরণ উপভোগ করলেন বিষ্ণুপুরের সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে পর্যটকরাও।

সদানন্দ জানিয়েছেন তিনি জানেন না কত সংখ্যক ডুব দিলে বিশ্বরেকর্ড করা যায়। জানা নেই সেই বিশ্ব রেকর্ডের তকমা পেতে গেলে কীভাবে আবেদন করতে হয়। তবে তিনি যত দিন বাঁচবেন, তত দিন  এই ভাবেই বর্ষবরণ করে যাবেন। তবে কি সামনের বছর ২০২৩ টি ডুব দেবেন তিনি? উত্তরে মৃদু হেসে সম্মতি জানালেন সদানন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × four =