অন্যপথ

বন্দনা বিশ্বাস, গোবরডাঙা, উত্তর ২৪ পরগনা ##

নদী, তোমায় হারাই যদি

কিচ্ছু ভেবনা

অগণন সমুদ্রগামী স্রোতে

খুজে নেব সান্ত্বনা ।।

পাখি, যদি তোমারই মতো করে

না উড়তে শিখি

দুশ্চিন্তা করোনা।

অন্তস্থলে নিবৃত্ত আবেগ

অশরীরে পৌঁছে দেবে, আমার ঠিকানা ।।

ফুল তোমার নিয়মে যদি

না ফুটতে পারি

মিছিমিছি ভেবনা।

নিয়ত আবর্তিত পৃথিবীর

সংখ্যাতীত সুর

আমাতে সম্পৃক্ত হয়ে

তৈরি করবে নিজস্ব ঘরানা।

সূর্য, প্রেম আর প্রেমিকের স্বত্ব নিয়ে

আমায় ঠাট্টা কোরো না।

তোমার ভালোবাসার আলোকে

নিষ্প্রভ থাকার অধিকার

নারীর আছে।।

চাঁদ তোমার মনোমত রূপে

যদি প্রকাশিত হই

মিছে কষ্ট পেয়ো না।

স্বচ্ছন্দ, স্বরূপে ঠিক খুঁজে নেবো

ওড়ার ডানা।।

ঝর্না, যদি তোমার নিয়মে

না ঝরি

গতিহীন ভেবনা।

অর্ধনারী আর ঈশ্বরের মাঝে

অসংখ্য অস্তিত্বের

কোনও না কোনওটিতে

প্রকাশিত হবেই

আমার স্বকীয় চেতনা।।

একাকীত্ব, তুমিও শোক কোরো না

তোমার নিয়মে তোমার ভিতরে

না থাকলেও

আমায় চিনে নিতে

ভুল কোরো না।।

কর্ম, যদি মুখরতা বিসর্জন দিয়ে

তোমার ধর্ম বিচ্যুত হই

একেবারে শিকড়হীন

ভেবো না ।

যদি চিন্তাতেই,

কর্মের প্রথম বীজ

অঙ্কুরিত হয়

তাহলে অলস, বিবশ- দিন শেষেও

আমি কর্মী,

তোমার নিয়ম বহির্ভূত

কিন্তু তোমাতেই উন্মনা

অনিয়মেরও নিজস্ব রীতি আছে।

তাই, আমায় ফেলে দিতে

পার না ।।    

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *