অপেক্ষা

অঞ্জলি দে নন্দী ##

দিকবিদিক জ্ঞান শূণ্য হয়ে ছুটছিলুম।

সাফল্যের শেষ সিঁড়িতে উঠেছিলুম।

কর্ম যুদ্ধে আমি হারিনি।

তবুও ছাদে পৌঁছতে পারিনি।

জগৎ প্রশ্ন করেছিল,

কী চাও তুমি?

বাধাদাতা স্বামী

নাকী নিজের পরম সফলতা।

দ্বিধায় অন্তর ভরেছিল।

স্বামীকেই মেনে নিলুম আমি।

আর্তনাদে গুমরে উঠলো মম মনভূমি।

তবুও মানি যে স্বামীর বিরুদ্ধে চলা মানে

তা তো চারিত্রিক চপলতা।

তা যে সংসারে অমঙ্গল আনে।

তাই আমার সাফল্যের উড়ন্ত ধ্বজা,

ধূলি ধূসরিত হয়ে আজ অসহায়।

আর ও ওড়ে না হাওয়ায়।

কোনও প্রভাব না পড়ে

এখন ওর আর, পবন বওয়ায়।

দমিয়ে রেখেছে সব চাওয়া পাওয়ায়।

ব্যর্থতা এখন ওড়ায় মজা।

তাই তো নিঃশব্দে কাঁদে।

তবুও নীরবে ও অপেক্ষা করে।

নিশ্চিত ও যে পৌঁছবেই সাফল্যের ছাদে।

শ্রী সৌভাগ্য দেবীর অনন্ত বরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × three =