এসো মা লক্ষ্মী এসো ঘরে

তাপস মুখোপাধ্যায় ##

কেমনতর লক্ষ্মী মা তুই, বড়ই যে তুই একপেশে

গরীব-গুর্বো মানুষ গুলো, কাটায় যে দিন কায়-ক্লেশে|

দিন মজুরী পায়-না-পায়, সাজিয়ে দেয় ভোগের থালা,

লুচি, খিচুরী, সব্জী, ভাজা, হালুয়া, পায়েস, মিঠাই ডালা|

অন্তর থেকে দেয় অঞ্জলী, সারাটা দিন উপোস থেকে,

আলঙ্কারিক নয় সে পুজো, নিজের চোখে যা তুই দেখে|.

শ্বেত পাথরের মন্দিরে তুই, আছিস ধনীর বন্দী হয়ে

জানি বশীকরণ করেছে ওরা, নানান রকম ফন্দী করে|

মা-রে একবেলা জুটিয়ে খাওয়া, ছুটছে যারা পেটের টানে

তাদের ঘরকে সাজিয়ে আলোয়, ক্ষেত ভরা মা সবুজধানে|

ধনীর দুলাল বুঝবে কি আর, ব্যাস্ত তারা পাল্লা দিতে

মরছে লোকে পেটের জ্বালায়, কিইবা আসে ওদের তাতে|

আর কতদিন থাকবি মা-রে, ওদের হাতে বন্দী হয়ে

চেয়ে এবার দেখনা মা-রে, মরছে মানুষ বাঁচার ভয়ে|

একটু কৃপা কর না মা তুই, আনতে খুশীর আলো

বাঁচার তরে বাঁচতে হবে, ঘুচিয়ে সকল মনের কালো|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen + 13 =