বিদেশ ভ্রমণের জন্য চা বিক্রি

দুজনের বয়সই ৭০ এর কোঠায়। এই বয়সেও দুজনে অক্লান্ত পরিশ্রম করে দিন-রাত চা বিক্রি করেন নিজেদের চায়ের দোকানে।কারণ একটাই। তা হলো দেশ-বিদেশে ঘুরে বেড়ানোর নেশা।

ভারতের কোচিন শহরে বসবাসকারী এই দম্পতির নাম বিজয়ন ও মোহনা বিজয়ন। ৪৫ বছরের বিবাহিত এই জুটি চা বিক্রি শুরু করেন ৪০ বছর আগে। 

কোচিন শহরে বিজয়ন ও মোহনা দম্পতি ‘শ্রী বালাজি কফি হাউস’ চালু করেন মূলত বিশ্ব ভ্রমণের টাকা জোগাড় করার জন্য । ফুটপাথের এই দোকানটি শুরু থেকেই দৃষ্টি কাড়ে ক্রেতাদের। পরে বড় হয় সেই দোকান। বিজয়ন জানান, প্রতিদিন তাদের দোকানে গড়ে ৩০০ থেকে ৩৫০ লোক আসেন চা খেতে। 

বিজয়ন ও তার স্ত্রী প্রথম থেকেই টাকা জমানোর একটা পদ্ধতি অনুসরণ করতে শুরু করেন। নিয়ম অনুযায়ী প্রতিদিন তারা চা বিক্রির টাকা থেকে ৩০০ টাকা আলাদা করে রেখে দিতেন। কিছু টাকা জমলে ব্যাঙ্ক থেকে আরও কিছু ধার করে এই দম্পতি ঘুরতে যান পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে। এরপর তিন বছর ধরে ব্যাংকের ধার শোধ করেন। তারপর আবারও একই পদ্ধতি অনুসরণ করে ঘুরতে যান। বিজয়ন জানান, কর্মচারীদের খরচ বাঁচাতে তারা নিজেদের দোকান নিজেরাই চালান। 

এরই মধ্যে চা বিক্রি করে এই দম্পতি ২৩ টি দেশ ভ্রমণ করেছেন।বিজয়ন ও মোহনা জানান, বিভিন্ন দেশের মধ্যে তাদের সিঙ্গাপুর, সুইজারল্যাণ্ড এবং নিউইয়র্ক সবচেয়ে ভালো লেগেছে। 

বিভিন্ন দেশ ঘোরার সময় তারা সেই দেশের পোস্টার নিয়ে আসেন। তারপর সেগুলো স্মৃতি হিসেবে যত্ন করে তাদের কফি হাউসের দেওয়ালে লাগান। 

এই দম্পতি জানান, তাদের এখনকার স্বপ্ন সুইডেন, ডেনমার্ক, হল্যাণ্ড, গ্রীনল্যাণ্ড এবং নরওয়ে ভ্রমণ করা। সেই সঙ্গে সেসব দেশের কৃষ্টি, সংস্কৃতি ও জীবনযাপন পদ্ধতি জানা। 

ভ্রমণ পিপাসু এই দম্পতির মতে, ইচ্ছা আর চেষ্টা থাকলে কোনো না কোনো উপায়ে স্বপ্নপূরণ হবেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *