সপ্তাহে চারদিন ছুটি, ছয় ঘন্টা করে কাজ!!!

এই খবরটি আমাদের দেশের পাঠক বা চাকুরিজীবীদের কাছে অতি দুঃখের। কারন আমাদের দেশে কাজের সময় আট ঘন্টা তো বটেই বেশ কিছু ক্ষেত্রে তা ১০, ১২ এমনকি ১৪ ঘন্টাও ছাড়িয়ে যায়। ছুটির দিন? কিছু ক্ষেত্রে দুদিন ছাড়া বাকি প্রায় সর্বত্রই একদিন ছুটি। কিন্তু  বিশ্বের সবচেয়ে কনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন ফিনল্যান্ডের চাকুরিজীবীদের জন্য নতুন বছরে সুখবর দিয়েছেন। উত্তর ইউরোপের এই দেশটিতে এখন থেকে সপ্তাহের চারদিনই ছুটি থাকবে। আর ছুটি ছাড়া বাকি দিনগুলোতেও দিনে কর্মঘণ্টা নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র ছয় ঘণ্টা।

ফিনল্যান্ডের জনগণ যাতে তাদের পরিবারকে আরও বেশি সময় দিতে পারে সেজন্য নতুন এ নিয়ম চালু করেছেন প্রধানমন্ত্রী। আগে সপ্তাহে তিনদিন ছুটি ছিলো। আর বাকি পাঁচ দিন ছিলো কর্মদিবস। প্রতিদিন কাজ করতে হতো ৮ ঘণ্টা করে। সেখান থেকে কমিয়ে চার দিন ছুটি ও ছয় ঘণ্টা করে কর্মঘণ্টা নির্ধারণ করে রীতিমতো চমক দিয়েছেন ৩৪ বছর বয়েসী সানা মারিন।



সব মিলিয়ে এক সপ্তাহে ফিনল্যান্ডের মানুষ কাজ করে ১৮ ঘণ্টা। বাকি সময়গুলো একান্তই নিজের। নতুন এমন নিয়মে দেশটির চাকুরিজীবীদের খুশির শেষ নেই।

এক সন্তানের জননী সানা ম্যারিন মাত্র ২৭ বছর বয়সে ফিনল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলে নিজ শহর ত্যামপেরে’র কাউন্সিল প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হন। এরপর দেশটির রাজনৈতিক অঙ্গনে দ্রুত উন্নতি করতে থাকেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে দেশটির পরিবহন মন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন সানা। বর্তমানে তিনিই বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়েসী প্রধানমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *