নৃত্যকাঞ্চনের উপহার

সমীর ঘোষ

নীল আকাশে সাদা মেঘের ভেলা , ভোরের শিউলি জানান দিয়েছে এসেছে শরৎ। দেবী পক্ষের আনন্দ যজ্ঞে মাতোয়ারা গোটা শহর-গ্রাম। শারদীয়া আবহে ফের এক অপরূপ নৃত্যসন্ধ্যা উপহার পেলেন শ্রীরামপুরের মানুষজন। গত ২ অক্টোবর, রবিবার ‘নৃত্যকাঞ্চন’-এর বাৎসরিক উৎসবে নৃত্যের তালে তালে আন্দোলিত হলেন দর্শকরাও।

শ্রীরামপুর রবীন্দ্রভবন সংস্থার বার্ষিক অনুষ্ঠানে এদিন ছিল জমজমাট সংস্কৃতি মুখর। কথক নৃত্যের এক অসাধারণ উপস্থাপনা তুলে ধরেন সংস্থার কর্ণধার প্রতিভা দাস। কথকের শৈলীতেই বড়দের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ছোটরা পরিবেশন করে নৃত্যনাট্য ‘তুষারমালা’। কচিকাঁচাদের অনায়াস উপস্থাপনা অভিভূত করে দর্শকদের।

অন্যান্যবারের মত এবারও ছিল কৃতীদের সম্মাননা প্রদান। নাট্যব্যক্তিত্ব অমিতাভ ঘোষকে সম্মান প্রদান করা হয় নৃত্যকাঞ্চনের পক্ষ থেকে। পাশাপাশি বর্ধমানের নতুনগ্রামের কাঠের পুতুল উপহার দিয়ে পুরস্কৃত করা হয় সংস্থার কৃতীদের ।


ছোটদের নাচের পাশাপাশি মঞ্চস্থ হয় সমাজে নারীর বঞ্চনা ও অধিকার নিয়ে তৈরি নৃত্যালেখ্য ‘আমি সেই মেয়ে’। সুন্দর সাবলীল সেই উপস্থাপনা নাড়িয়ে দেয় দর্শকদের। আগামী বছরে ফের এমনই মনোগ্রাহী সুস্থ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের প্রতিশ্রুতি নিয়ে বাড়ি ফেরেন দর্শকেরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *