কাঁচা লংকার উপকার

লংকা এক প্রকারের ফল যা ঝাল স্বাদের জন্য রান্নায় ব্যবহার করা হয়। ক্যাপসিকাম (Capsicum) গণের সোলানেসি (Solaneceae) পরিবারের উদ্ভিদের ফলকে সাধারণভাবে লংকা বলা হয়। লংকার ফলকে মসলা হিসাবে ব্যবহার করা হয়।
লংকার আদি নিবাস আমেরিকা মহাদেশে। তবে বর্তমানে পৃথিবীর সর্বত্র রান্না ও ঔষধি হিসাবে এটি ব্যবহৃত হয়ে থাকে। প্রায় ৭৫০০ বছর আগে থেকেই আমেরিকার আদিবাসীরা লংকা ব্যবহার করে আসছে। ইকুয়েডর এর দক্ষিণ পশ্চিমাংশে পুরাতাত্ত্বিকেরা ৬০০০ বছর আগে লংকা চাষের প্রমাণ পেয়েছেন।

লংকা বা কাঁচা লংকায় রয়েছে স্বাস্থ্য রক্ষার নানা উপাদান। চলুন জেনে নিই কাঁচা লংকার উপকারিতা:-
>রক্তের কোলেস্টেরল কমায় কাঁচা লংকা
>কাঁচা লংকায় আছে ভিটামিন এ যা হাড়, দাঁত ও মিউকাস মেমব্রেনকে ভালো রাখতে সহায়তা করে।
>কাঁচা লংকায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে যা মাড়ি ও চুলের সুরক্ষা করে।
>নিয়মিত কাঁচা লংকা খেলে নার্ভের বিভিন্ন সমস্যা কমে।
>প্রতিদিন খাবার তালিকায় অন্তত একটি করে কাঁচা লংকা রাখলে ত্বকে সহজে বলিরেখা পড়ে না।
>কাঁচা লংকায় আছে ভিটামিন সি। তাই যে কোনো ধরণের কাটা-ছেড়া কিংবা ঘা শুকানোর জন্য কাঁচা লংকা খুবই উপকারী।

>কাঁচা লংকার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন সি শরীরকে জ্বর, সর্দি, কাশি ইত্যাদি থেকে রক্ষা কর
><গরম কালে কাঁচা লংকা খেলে ঘামের মাধ্যমে শরীর ঠান্ডা থাকে।
>প্রতিদিন একটি করে কাঁচা লংকা খেলে রক্ত জমাট বাধার ঝুঁকি কমে যায়।
>নিয়মিত কাঁচা লংকা খেলে হৃদপিণ্ডের বিভিন্ন সমস্যা কমে যায়।
>কাঁচা লংকা মেটাবলিসম বাড়িয়ে ক্যালোরি পোড়াতে সহায়তা করে।
>কাঁচা লংকায় প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বিটা ক্যারোটিন আছে যা কার্ডোভাস্ক্যুলার সিস্টেম কে কর্মক্ষম রাখে।
>নিয়মিত কাঁচা লংকা খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।
তাই তো নিয়মিত লংকা খান। সুস্থ থাকুন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *