বিশ্বের অপরূপ কিছু সমুদ্র সৈকত

পৃথিবীতে রয়েছে অসংখ্য সমুদ্র সৈকত, যাদের মধ্যে এমন বেশ কিছু সৈকত রয়েছে যাদের রূপ, এবং স্বকীয়তা বাকহীন করে দেবে আপনাকে। অদ্ভুত ধরণের সমুদ্র সৈকতগুলি অন্য যে কোনো সৈকত থেকে আলাদা। এই সব সমুদ্র সৈকতের কিছু ভিন্নতা রয়েছে যা একই সঙ্গে এই সৈকত গুলোকে দিয়েছে অসাধারণ রূপ ও আলাদা বৈশিষ্ট্য। অপরূপ সেই সব সৈকতগুলির মধ্যে কয়েকটির নাম ও বৈশিষ্ট আলোচনা করা হল।


১) ওপরের ছবিটি পর্তুগালের লাগোয়া সমুদ্র সৈকতের। সামনে নীল-আর সবুজের অন্তরঙ্গ মিশেলে চলা জল। আর বালি পাথরের সৌন্দর্য। আপনাকে মুগ্ধ করবেই। এই সমুদ্র সৈকতকে আপনি দেখেওছেন অনেক সময় হিন্দি বা ইংরেজি ছবিতে।

২) আইসল্যান্ডের ভিক টাউন সমুদ্র সৈকত। তাই এখানকার সমুদ্র সৈকত একেবারে কালো। অনেক ছাই যদি সামনে পড়ে থাকে, তার রঙ যেমন হয়, গোটা সমুদ্র সৈকতের রঙটা তেমনই। নীলজলও যেন কালো লাগে। তার উপরে সাদা রঙের ফেনা আপনাকে চোখ ফেরাতে দেবে না।

৩) আমেরিকার পেফিফার সমুদ্র সৈকত। এখানে গেলে আপনি যেমন রঙের বালি দেখতে পাবেন, তেমনটাও পৃথিবীর আর কোথায় দেখতে পাবেন না। কারণ, এখানে পাবেন পার্পল রঙের সমুদ্র সৈকত। আমেরিকায় গেলে, অবশ্যই যাবেন এখানে।

৪) অস্ট্রেলিয়ার নেলসন বে সমুদ্র সৈকত। এখানে গেলে আপনি সমুদ্রের জল কিংবা বালির রঙ নয়, মুগ্ধ হবেন এখানকার বিচে শামুক, ঝিনুকের খোল পড়ে থাকতে দেখে। গোটা সমুদ্র সৈকতটাই ঢেলে সাজানো থাকে ঝিনুকের খোলে। ভারি সুন্দর।


৫) ইকুয়েডরের গালাপাগোস সমুদ্র সৈকত। এখানকার সমুদ্র সৈকতের রঙও দারুণ। একেবারে লাল। আসলে এই অঞ্চলে অনেক আগ্নেয়গিরি রয়েছে। আর সেটা থেকে নির্গত লাভা মিশে, সমুদ্র সৈকতের রঙ হয়ে যায় একেবারে লাল। অনেকটা সুড়কির সমুদ্র সৈকত মনে হতে পারে আপনার।


৬) নিউজিল্যান্ডের মোইরাকি কোয়েকোহে সমুদ্র সৈকত। এই সমুদ্র সৈকতের আকর্ষণ এখানকার পাথর। এখানে দীর্ঘদিন থেকে পড়ে থাকা পাথর আপনার মন ভালো করে দেবে। কারণ, এখানকার বিচারে পাথরগুলো সবই এক মাপের। গোল। সমান মাপের এই গোল পাথরগুলিই যেন এই সৈকতকে অন্যদের থেকে আলাদা করে দিয়েছে।


৭) প্লেগ দেঁশ রোচেস সমুদ্র সৈকত। অবশ্যই একবার ঘুরে আসবেন। কারণ, এখানকার বিচের রঙ একেবারে সবুজ। মনে হবে ঘাসের উপর বসে রয়েছেন। আসলে কিন্তু বালি।


৮) ওপরের ছবিটি সারদিনিয়া সমুদ্র সৈকতের। ইটালির এই সৈকতের রূপ আপনাকে পাগল করে দেবে। গোলাপি সৈকতে নীল জলের আনাগোনা যেন স্বপ্নের চেয়েও সুন্দর।

৯) লুকোনো সমুদ্র সৈকত রয়েছে মেক্সিকোতে। পাহাড়ের মধ্যে এই ম্যারিটা সৈকতকে পাশ থেকে দেখা যায় না। আশ্চর্য এও সৈকতটি পাহাড় দিয়ে ঘেরা একটি পুকুরের মতন। ওপর দিয়ে নামলে দেখা যায় সৈকতের জল এবং বালির যুগলবন্দী।


১০) স্টারি সমুদ্র সৈকত। মালদ্বীপের এই সমুদ্র সৈকতে রাতের তারারা সৈকতে নেমে আসে। সমুদ্র তীরের জলে তারার মতো জ্বলতে থাকা এই জিনিসগুলো আসলে বায়োলুমিনেসেন্ট ফাইটোপ্ল্যাঙ্কটন যা খালি চোখে দেখা যায় না। কিন্তু একসঙ্গে অনেকগুলো থাকায় তা রাতে জ্বলতে থাকে। সে এক অপরূপ দৃশ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *