মেয়েটি

কম্পাস মণ্ডল

মেয়েটি বলেছিল –
তার মনে প্রেম আসেনা কখনও ;
যদিও সে খুবই সুন্দরী!
সরস্বতীর মতো কোমর,
গভীর চঞ্চল চোখ,
আর ঢেউ এর মতো চুল –
যেটা তাকে আরও গভীর করে তুলেছিল।
মেয়েটির মুখে আঁচিল ছিল –
আমরা তাকিয়ে থাকতাম সে দিকে।
মেয়েটি বলেছিল –
তার একজনকে ভালো লেগেছে
আমাদের মধ্যেই কেউ একজন।
যার চোখে দুঃখের ছবি আঁকা থাকে
পলাশের আগুনের মতো।
যদিও মেয়েটি খুবই বড়োলোক –
তার কালচে সবুজ পার্সে উঁকি মারতেন লাল গান্ধিজী !
যেটা তাকে আরও সুন্দরী করে তুলেছিল।
মেয়েটি বলেছিল –
প্রেম মানে শরীর , প্রেম মানে অর্থ
প্রেম মানে ভালোবাসা !
যদিও সে তার সঙ্গে কথা বলেনি কখনও
স্পর্শ করেনি তার দুঃখ…
তবুও বলেছিল , সে তাকে ভালবাসে !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *